শিরোনাম:

দৌলতপুরে ব্যাডমিন্টন টুর্নামেন্টে গাংনীর আড্ডা চ্যাম্পিয়ন

দৌলতপুরে ব্যাডমিন্টন টুর্নামেন্টে গাংনীর আড্ডা চ্যাম্পিয়ন
image_pdfimage_print

মেহেরপুর নিজউ টোয়েন্টিফোর ডটকম, ২৩ ডিসেম্বর ২০১৭:

কুষ্টিয়ার দৌলতপুর উপজেলার প্রাগপুরে অনুষ্ঠিত ‘মায়ের ছোয়া’ ব্যাডমিন্টন টুর্নামেন্টন চ্যাম্পিয়ন হওয়ার গৌরব অর্জন করেছে মেহেরপুর গাংনীর আড্ডা দল। বিজয়ী দলের হয়ে জাতীয় র‌্যাঙ্কিকের সুনাম ধরে রাখলেন দুলাল-পরশ জুটি। শুক্রবার সন্ধ্যায় শুরু হওয়া টুর্নামেন্ট শেষ হয় শনিবার সকাল সাড়ে ছয়টায়। এতে ২-০ সেটে চুয়াডাঙ্গার এআর টাওয়ার দলের এনাম-সোহেল জুটিকে পরাজিত করে বিজয় মুকুট ছিনিয়ে আনে আড্ডা দলের দুলাল-পরশ জুটি। গেল বছর জাতীয় দলের সর্বোচ্চ র‌্যাঙ্কধারী খেলোয়াড় দুলাল-পরশ।
প্রাগপুর মাধ্যমিক বিদ্যালয় মাঠে মনোরম পরিবেশে আয়োজিত টুর্নামেন্টে অংশ গ্রহণ করে বিভিন্ন এলাকার ১৬টি দল। প্রতিটি দলেই ছিলেন জাতীয় পর্যায়ের র‌্যাঙ্কিধারী খেলোয়াড়। তাই প্রথম রাউন্ড থেকেই খেলা হয়ে ওঠে তুমুল প্রতিদ্বন্দীপূর্ণ। কেউ কাউকে ছাড় দেয়ার নয়। ব্যক্তিগত ও জুটিগত সেরা খেলা প্রদর্শন দর্শকদের আনন্দের সঞ্চার করে। একটি পয়েন্ট দর্শকদের জন্য একটি বাধ ভাঙ্গা উল্লাস। এভাবেই রাতভর চলে খেলা। ফাইনাল খেলা অনুষ্ঠিত হয় শনিবার সকাল ছয়টায়। এতে শ্রেষ্ঠত্ব প্রমাণ করেই জয়ের মালা ছিনিয়ে আনেন আড্ডা দলের দুলাল-পরশ জুটি। তাদের বিরুদ্ধে ঘুরে দাঁড়াতেই পারেনি রানার্সআপ এনাম-সোহেল জুটি। শেষ পর্যন্ত ২-০ সেটে জয়লাভ করে চ্যাম্পিয়ন আড্ডা জুটি। স্থানীয় দর্শকদের সাথে রাতভর খেলা উপভোগ করেন গাংনীর আড্ডার সদস্যসহ বিভিন্ন শ্রেণীর দর্শক।
চ্যাম্পিয়ন দল ৬০ হাজার ও রানার্সআপ দল ৩০ হাজার টাকার প্রাইজ মানি পেয়েছেন। সেই সঙ্গে চ্যাম্পিয়ন।
ট্রফি গ্রহণ করেন চ্যাম্পিয়ন জুটি দুলাল-পরশ, আড্ডা সভাপতি ওয়াহেদ বীন হোসেন মিন্টু, সাধারণ সম্পাদক আবু হানজেলা, টুর্নামেন্ট অংশগ্রহণের সার্বিক দায়িত্বে থাকা খোরশেদ আলম, আড্ডার অন্যতম সদস্য মশিউর রহমান, কামাল হোসেন, মিজানুর রহমান, বশির আহম্মেদ, বাবুল আক্তার, সিলন, জাবলুন্নবী, আলমগীর হোসেন, বকুল, আব্দুল্লাহ, বুলু, মাহবুব, স্বপন, বাবু, সাজু, জাফর, আলম, শিমুল, মিজান, অনন্ত, সহ আড্ডার সকল সদস্য। শনিবার সকালে চ্যাম্পিয়ন দলের খেলোয়াড় ও আড্ডা সদস্যরা গাংনীতে ফিরে আসলে তাঁদেরকে ফুল দিয়ে শুভেচ্ছা জানান নারীনেত্রী নুরজাহান বেগমসহ এলাকার ক্রীড়াপ্রেমিরা।

মন্তব্য করুন