শিরোনাম:

গাংনীতে দেশী-বিদেশী চিকিত্সকদের সমন্বয়ে গঠিত মেডিকেল ক্যাম্পের রেজিস্ট্রেশন শুরু

গাংনীতে দেশী-বিদেশী চিকিত্সকদের সমন্বয়ে গঠিত মেডিকেল ক্যাম্পের রেজিস্ট্রেশন শুরু
image_pdfimage_print

মেহেরপুর নিউজ টোয়েন্টিফোর ডটকম, ২০ আগস্ট ২০১৭:

দেশের বিভিন্ন হাসপাতাল ও ভারতের বিশেষজ্ঞ চিকিত্সকদের সমন্বয়ে মেহেরপুর গাংনীতে মেডিকেল ক্যাম্প অনুষ্ঠিত হতে যাচ্ছে। আগামি ১১ থেকে ১৩ সেপ্টেম্বর তিন দিন ব্যাপী মেডিকেল ক্যাম্পের জন্য রোগী রেজিস্ট্রেশন শুরু হয়েছে। রোববার দুপুরে রেজিস্ট্রেশনের আনুষ্ঠানিক উদ্বোধন ঘোষণা করেন অনুষ্ঠানের প্রধান অতিথি বিশিষ্ট সংগঠক সিরাজুল ইসলাম। গাংনীর স্বেচ্ছাসেবী প্রতিষ্ঠান ‘সোপান সংস্থা’ কাথুলী মোড়ে এ অনুষ্ঠানের আয়োজন করে।
অনুষ্ঠানে অতিথি হিসেবে আরো উপস্থিত ছিলেন গাংনী মহিলা ডিগ্রি কলেজ প্রভাষক মহিবুর রহমান মিন্টু, বিশিষ্ট ওষুধ ব্যবসায়ী শহিদুল ইসলাম ও গাংনী প্রেস ক্লাব সাধারণ সম্পাদক তৌহিদ-উদ-দৌলা রেজা। অনুষ্ঠানে স্বাগত বক্তব্যে মেডিকেল ক্যাম্প ও ভারতে চিকিত্সা গ্রহণের বিষয়ে বক্তব্য রাখেন অনুষ্ঠানের আয়োজক তপু।
আয়োজক সূত্রে জানা গেছে, রাজধানীর রিফলেক্ট মেডিকেল সেন্টার ও ভারতের কোলকাতার বিড়লা হাসপাতালের সহযোগিতায় মেডিকেল ক্যাম্প অনুষ্ঠিত হতে যাচ্ছে। নিউরোলজি, অর্থপেডিক, গ্যাস্ট্রোলজি, কাডিওলজিসহ বিভিন্ন বিষয়ের অভিজ্ঞ চিকিত্সকরা সেবা প্রদান করবেন। গতকাল থেকে শুরু হওয়া রেজিস্ট্রেশন চলবে আগামি ৩০ আগস্ট পর্যন্ত। মেডিকেল ক্যাম্পের যেকোন বিষয়ের জন্য ০১৭৮৭-১৬৮৪৩৩ ও ০১৭৫০-০৪৯৪৯৬ নম্বরে যোগাযোগ করতে হবে।
মেহেরপুর জেলার অনেক রোগী প্রতিবছর ভারতের বিভিন্ন স্থানে চিকিত্সার জন্য গমন করেন। বর্তমান বিশ্বে ভারত উন্নততর চিকিত্সায় এগিয়ে যাওয়ায় অনেকেই এখন ভারতে ঝুঁকছেন। কিন্তু সাধারণ রোগীরা উপযুক্ত হাসপাতাল ও চিকিত্সকের খোঁজ জানেন না। এছাড়াও ভিসা প্রাপ্তি ও ভ্রমণের নানা জটিলতা রয়েছে। ভারতে কখন কোথায় কিভাবে যেতে হবে তা জানা নেই অনেকের। অন্যদিকে নির্দিষ্ট ডাক্তারের সেবা পাওয়া নিয়েও নানা ঝামেলায় পড়তে হয় রোগী এবং তাদের স্বজনদের। এসব বিষয় বিবেচনায় নিয়ে ‘সোপান সংস্থা’ চালু করতে যাচ্ছে স্বাস্থ্য সেবা পরামর্শ ব্যবস্থা। এখান থেকে নির্দিষ্ট চিকিত্সকের সেবা প্রাপ্তির দিন বুকিং, বিমান ও ট্রেনের টিকিট ও মেডিকেল ভিসা বিষয়ে যাবতীয় সহযোগিতা মিলবে। ভারতের চিকিত্সার খরচ ও কতদিন কোথায় থাকতে হবে সে বিষয়ে একটি নির্দিষ্ট ধারনা নিয়েই গমন করতে পারবেন রোগী ও তাদের স্বজনরা। অপরদিকে দেশে বসেই বুকিং দেয়া যাবে নির্দিষ্ট দিনের বিমান ও ট্রেনের টিকিট। ফলে একদিকে খরচ সাশ্রয় হবে অন্যদিকে সময় ও ঝামেলামুক্ত সেবা গ্রহণ করেই দেশে ফিরতে পারবেন রোগীরা। ভারতে স্বাস্থ্যসেবা প্রাপ্তির সহযোগিতার ওই উদ্যোগ সাধুবাদ জানিয়েছেন গাংনীর বিভিন্ন শ্রেণী পেশার মানুষ।

মন্তব্য করুন